জারণ, বিজারণ – জারক ও বিজারক পদার্থ

0
332

জারণ

এই অধ্যায়ে আমরা জারণ, বিজারণ, জারক ও বিজারক পদার্থের উপর আলোচনা করব।

জারণ এর সংজ্ঞা

যে রাসায়নিক প্রক্রিয়ায় কোন মৌল বা যৌগ অক্সিজেন বা অন্য কোন তড়িৎ ঋণাত্মক মৌল বা মূলক যুক্ত হয় কিংবা কোন যৌগ থেকে হাইড্রোজেন বা অন্য কোন তড়িৎ ঋণাত্মক মৌল অপসারিত হয় সেই প্রক্রিয়াকে জারণ প্রক্রিয়া বলে।

১. ম্যাগনেসিয়াম ধাতুকে অক্সিজেনে উত্তপ্ত করলে ম্যাগনেসিয়াম অক্সাইড উৎপন্ন হয়। 2Mg + O2 = 2MgO
এই বিক্রিয়ায় ম্যাগনেসিয়াম এর সঙ্গে অক্সিজেন যুক্ত হয়েছে, ম্যাগনেসিয়াম অক্সিজেন দ্বারা জারিত হয়ে ম্যাগনেসিয়াম অক্সাইড এ পরিণত হয়েছে। এখানে অক্সিজেন জারক।

দ্রাব্যতা ও দ্রাব্যতার উপর উষ্ণতার প্রভাব

২. বর্ণহীন ফেরাস ক্লোরাইড দ্রবণের ভেতর দিয়ে ক্লোরিন গ্যাস চালনা করলে দ্রবণের বর্ণ হলুদে পরিণত হয় এবং ফেরাস ক্লোরাইড ফেরিক ক্লোরাইডে পরিণত হয়।
2FeCl2+Cl2=2FeCl3
এই বিক্রিয়ায় FeCl2 এর সঙ্গে তড়িৎ ঋণাত্মক মৌল ক্লোরিন যুক্ত হয়েছে, সুতরাং এটা জারণ। ফেরাস ক্লোরাইড ও ক্লোরিন দ্বারা তাড়িত হয়ে ফেরিক ক্লোরাইডে পরিণত হয়েছে। ক্লোরিন এখানে জারক।

বিজারণ

যে রাসায়নিক প্রক্রিয়ায় কোন মৌল বা যৌগে হাইড্রোজেন বা অন্য কোন তড়িৎ ধনাত্মক মৌল বা মুলক যুক্ত হয় কিংবা কোন যৌগ থেকে অক্সিজেন বা অন্য কোন তড়িৎ ঋণাত্মক মৌল বা মূলক অপসারিত হয় সেই প্রক্রিয়াকে বিজারণ বলে।

১. ক্লোরিন জলের মধ্যে দিয়ে হাইড্রোজেন সালফাইড গ্যাস চালনা করলে হাইড্রোক্লোরিক এসিড উৎপন্ন হয় এবং হলুদ বর্ণের সালফার অধঃক্ষিপ্ত হয়।
Cl2 + H2S = 2HCl + S
এই বিক্রিয়ায় Cl2 এর সঙ্গে H2 যুক্ত হয়ে HCl উৎপন্ন করে। তাই Clএর বিজারণ হয়েছে। এখানে H2S বিজারক।

দ্রবণ | দ্রবণের বৈশিষ্ট্য ও প্রকার | দ্রাব ও দ্রাবক

২. জায়মান হাইড্রোজেন হলুদ বর্ণের ফেরিক ক্লোরাইড দ্রবণ কে বিজারিত করে বর্ণহীন ফেরাস ক্লোরাইড উৎপন্ন করে।
FeCl3 + H = FeCl2 + HCl
এই বিক্রিয়ায় FeCl3 থেকে তড়িৎ ঋণাত্মক মৌল ক্লোরিনের অপসারণ হয়েছে সুতরাং এটি বিজারণ। জায়মান হাইড্রোজেন এখানে বিজারক।

জারক ও বিজারক পদার্থ

জারক দ্রব্য

যে পদার্থ অন্য পদার্থকে জারিত করে নিজে বিজারিত হয় তাকে জারক দ্রব্য বলে।

জারক দ্রব্যের উদাহরণ

  • গ্যাসীয় জারক দ্রব্য — অক্সিজেন, ওজন, ফ্লোরিন, ক্লোরিন নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইড
  • তরল জারক দ্রব্য — নাইট্রিক অ্যাসিড, গাঢ় সালফিউরিক অ্যাসিড, হাইড্রোজেন পারঅক্সাইড, ব্রোমিন।
  • কঠিন জারক দ্রব্য — পটাশিয়াম পারম্যাঙ্গানেট, পটাশিয়াম ডাইক্রোমেট, রেড লেড।

হাইড্রোজেন সালফাইড | H2S এর ব্যবহার ও ধর্ম

বিজারক দ্রব্যের উদাহরণ

  • গ্যাসীয় বিজারক দ্রব্য— হাইড্রোজেন, সালফার ডাই অক্সাইড, হাইড্রোজেন সালফাইড, কার্বন মনোক্সাইড ইত্যাদি
  • তরল বিজারক দ্রব্য— নাইট্রাস অ্যাসিড, হাইড্রোব্রোমিক অ্যাসিড, হাইড্রো আয়ডিক অ্যাসিড
  • কঠিন বিজারক দ্রব্য— কার্বন, স্ট্যানাস ক্লোরাইড

জারণ ও বিজারণ একসঙ্গে ঘটে

মনে রাখতে হবে যে, রাসায়নিক বিক্রিয়ায় চারণ এবং বিচার প্রক্রিয়া একসঙ্গে ঘটে। কোন বিক্রিয়ায় জারণ ক্রিয়ার ঘটলেই বিজারণ ক্রিয়াও ঘটবে।
১. যেমন, কালো রংয়ের লেড সালফাইডের সঙ্গে হাইড্রোজেন পার অক্সাইড এর বিক্রিয়ায় সাদা রংয়ের লেড সালফেট এবং জল উৎপন্ন হয়। এখানে PbS ( কালো ), H2O2 দাঁড়া জারিত হয়ে PbSO4 ( সাদা ) উৎপন্ন করে এবং H2O2 নিজে বিজারিত হয় H2O তে পরিণত হয়।
PbS + 4H2O2 = PbSO4 + 4H2O
এখানে নীল রং দ্বারা জারণ এবং লাল রং দ্বারা বিজারণ কে বোঝানো হয়েছে।
২. লাল রঙের ব্রোমিন জলের মধ্যে দিয়ে সালফার ডাই অক্সাইড চালনা করলে ব্রোমিন বিজারিত হয় HBr উৎপন্ন করে, তাই Br2এর লাল রং বর্ণহীন হয়। আর SO2 জারিত হয়ে H2SO4 এ পরিণত হয়। এখানে Br2 জারক এবং SO2 বিজারক।

জারক পদার্থ অক্সিজেন এবং বিজারক পদার্থ হাইড্রোজেন কি থাকতেই হবে

জারণ বলতে কোন মৌল বাপ যৌগের সঙ্গে শুধু অক্সিজেনের সংযোগ বোঝায় না। মৌল বা যৌগের সঙ্গে তড়িৎ ঋণাত্মক মৌল বা মূলকের সংযোগ কিংবা কোন যৌগ থেকে হাইড্রোজেনের বা তড়িৎ ধনাত্মক মৌলের অপসারণও বোঝায়। সুতরাং জারক পদার্থের অক্সিজেনের উপস্থিতি অতি প্রয়োজনীয় নয়। যেমন Br2 এর সঙ্গে H2S এর বিক্রিয়ায় H2S , Br2 দ্বারা জারিত হয়ে S উৎপন্ন করে। এখানে Br2 জারক, এই জারণ বিক্রিয়ায় O2 যুক্ত হয় নি— সালফার থেকে H2এর অপসারণ দ্বারা জারণ ক্রিয়ার ঘটেছে।
H2S + Br2 = 2HBr + S
আবার বিজারণ বলতে শুধু H2 এর সংযোগ বোঝায় না। মৌল ও যৌগের সঙ্গে তড়িৎ ধনাত্মক মৌল বা মূলক এর সংযোগ কোন যৌগ থেকে অক্সিজেন বা তড়িৎ ঋণাত্মক মৌলের অপসারণও বোঝায়। তাই বিজারক দ্রব্য হাইড্রোজেন না থাকলেও চলে। যেমন উত্তপ্ত কপার অক্সাইড এর উপর দিয়ে কার্বন মনোক্সাইড চালনা করলে কপার অক্সাইড বিজারিত হয়ে ধাতব কপারে পরিণত হয়। এখানে কভার মনোক্সাইড বিজারক–এতে হাইড্রোজেন নেই।
CuO + CO = Cu + CO2


LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here