Home জীবন বিজ্ঞান
Category:

জীবন বিজ্ঞান

  • ব্যাপন ব্যাপনের প্রভাবক ব্যাপনের শারীরবৃত্তীয় গুরুত্ব শক্তির রূপান্তর| শক্তির প্রকারভেদ| শক্তির নিত্যতা সূত্র| শক্তির উৎস সম্বন্ধে জানতে ক্লিক করুন। অভিস্রবণ অভিস্রবণের সংজ্ঞা একই দ্রাবকের দুটি ভিন্ন ঘনত্বের দ্রবণ অথবা দ্রবণ ও বিশুদ্ধ দ্রাবককে অর্ধভেদ্য পর্দা দিয়ে আলাদা করে রাখলে কম ঘনত্বের দ্রাবক বেশি ঘনত্বের দ্রবণের দিকে অথবা বিশুদ্ধ দ্রাবক দ্রবণের…

    0 FacebookTwitterPinterestEmail
  • উৎসেচক বা এনজাইম উৎসেচকের সংজ্ঞা সজীব কোষে উৎপন্ন প্রোটিনধর্মী বৃহদাকার যে জৈব অণুঘটক কোষের ভিতরে এবং বাইরে রাসায়নিক বিক্রিয়ার হারকে বাড়িয়ে দেয় এবং বিক্রিয়ার শেষে অপরিবর্তিত থাকে তাকে উৎসেচক বলে। উৎসেচক সবগুলো সরল ও যৌগিক হয়। সরল উৎসেচক কেবলমাত্র প্রোটিন দিয়ে তৈরি। কিছু উৎসেচক প্রোটিন ও অপ্রোটিন বস্তু মিলে তৈরি।…

    0 FacebookTwitterPinterestEmail
  • মিয়োসিস (কোশ বিভাজন) এই আলোচনায় আমরা মিয়োসিস কোশ বিভাজন (প্রক্রিয়া) পদ্ধতি মিয়োসিস কোশ বিভাজনের গুরুত্ব ( তাৎপর্য ) সম্বন্ধে বিস্তারিত জানব। মিয়োসিস এক প্রকার স্বতন্ত্র ধরনের কোষ বিভাজন। এই বিভাজনে ক্রোমোজোমের মাত্র একবারই দ্বিত্বকরণ ঘটে এবং পরে অপত্য ক্রোমোজোম পৃথক হয়ে যায়। অর্থাৎ মিয়োসিসে একবার দ্বিত্বকরনের পরপর দুবার বিভাজন ঘটে।…

    0 FacebookTwitterPinterestEmail
  • গলগি বডি | গলগি বডি কাকে বলে গলগি বডির সংজ্ঞা বা গলগিবডি কি ইউক্যারিওটিক কোষের সাইটোপ্লাজমে, নিউক্লিয়াসের পাশে অবস্থিত নলাকার কিংবা চ্যাপ্টা থলির মত এবং ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র গহবরের ন্যায় একক পর্দা ঘেরা, ক্ষরণকার্যে নিয়োজিত যেসকল অঙ্গানু থরে থরে সজ্জিত থাকে তাকে বলা হয় গলগীবডি বা গলগি বস্তু। গলগি বডির আবিষ্কার…

    0 FacebookTwitterPinterestEmail
  • প্লাস্টিড এই আলোচনাতে আমরা প্লাস্টিড – প্লাস্টিড এর গঠন ও কাজ – প্লাস্টিডের চিহ্নিত চিত্র সম্বন্ধে বিস্তারিত জানবো– প্লাস্টিড এর সংজ্ঞা বা প্লাস্টিড কি উদ্ভিদ কোষে অবস্থিত দুটি পর্দা পরিবেষ্টিত এবং বিশেষ বিপাকীয় কাজে লিপ্ত ( রঞ্জক যুক্ত বা রঞ্জক বিহীন) অঙ্গাণুকে প্লাস্টিড বলে। প্লাস্টিডের আবিষ্কার ও নামকরণ বিজ্ঞানী স্কিম্পার…

    0 FacebookTwitterPinterestEmail
  • মাইটোকন্ড্রিয়া মাইটোকন্ড্রিয়া কাকে বলে ও মাইটোকন্ড্রিয়ার সংজ্ঞা দুটি পর্দা দ্বারা আবৃত যে সকল গোলাকার, ডিম্বাকার, সুতোর মতো অঙ্গাণু ইউক্যারিওটিক কোষের সাইটোপ্লাজমে বিক্ষিপ্ত অবস্থায় ছড়িয়ে থাকে তাদেরকে মাইটোকন্ড্রিয়া বলে।মাইটোকনড্রিয়াকে সুতোর মতো দানাময় অঙ্গাণু বা কনড্রিওজোম বলে।মাইটোকনড্রিয়া দ্বিপর্দাযুক্ত সাইটোপ্লাজমীয় অঙ্গাণু যারা সবাত শ্বসনের জন্য প্রয়োজনীয় উৎসেচক এবং শক্তি সরবরাহ করে থাকে। মাইটোকনড্রিয়ার…

    0 FacebookTwitterPinterestEmail
  • লাইসোজোম এবং লাইসোজোমের কাজ ও গঠন সম্বন্ধে বিস্তারিত আলোচনা—- লাইসোজোম লাইসোজোম এর সংজ্ঞা লাইসোজোম কি একক পর্দাবৃত পাচক উৎসেচক যুক্ত অতি সূক্ষ্ম থলিবৎ কোষীয় উপাংশ (অঙ্গাণু) যা কোষীয় বস্তুর পাচনে এবং বীজাণু ধ্বংসে অংশগ্রহণ করে তাদের লাইসোজোম বলে। লাইসোজোমের আবিষ্কার ও নামকরণ দি ডুভে প্রথম প্রাণী কোষে এদের পর্যবেক্ষণ করেন…

    0 FacebookTwitterPinterestEmail
  • রাইবোজোম । রাইবোজোমের গঠন ও কাজ সম্পর্কিত আলোচনা—- প্রোক্যারিওটিক কোষের সাইটোপ্লাজমে বিক্ষিপ্তভাবে এবং ইউক্যারিওটিক কোষের মধ্যে বিচ্ছিন্নভাবে, এন্ডোপ্লাজমিক জালিকার নিউক্লিয় পর্দার বহিঃগাত্রে সুসজ্জিত ভাবে একপ্রকার অতি আণুবীক্ষণিক দানাদার কোষ অঙ্গাণু দেখা যায়। এদের বলা হয় রাইবোজোম । রাইবোজোমের সংজ্ঞা কোষের সাইটোপ্লাজম, নিউক্লিয়াস এবং এন্ডোপ্লাজমিক জালিকার অতিক্ষুদ্র গোলাকার, রাইবো প্রোটিন নির্মিত,…

    0 FacebookTwitterPinterestEmail
  • কোষ প্রাচীর কোষ প্রাচীর ও কোষ প্রাকারের গঠন এবং কাজ সম্বন্ধে নিচে আলোচনা করা হল— একটি শক্ত পুরু সুরক্ষা প্রাকার যা উন্নত উদ্ভিদ, ব্যাকটেরিয়, ছত্রাক এবং শৈবালের কোষের প্লাজমা পর্দার বাইরে অবস্থান করে। প্রাণী কোষের কোষ প্রাকার থাকে না। ব্যাকটেরিয়ার কোষ প্রাচীর সকল ব্যাকটেরিয়ার কোশই একটি শক্ত এবং মজবুত কোষ…

    0 FacebookTwitterPinterestEmail
  • প্লাজমা পর্দা : গঠন ও কাজ | কোষ প্রাচীর ও কোষ পর্দার পার্থক্য প্লাজমা পর্দা বা কোষ পর্দা এই আলোচনা পর্বে আমরা প্লাজমা পর্দা, প্লাজমা পর্দার গঠন ও কাজ এবং কোষ প্রাচীর ও কোষ পর্দার পার্থক্য সম্বন্ধে বিস্তারিত জানব। কোষ পর্দা কি বা প্লাজমা পর্দা কাকে বলে কোষ পর্দার সংজ্ঞা…

    0 FacebookTwitterPinterestEmail
  • নিউক্লিয়াস ঃ নিউক্লিয়াসের গঠন ও কাজ | নিউক্লিওলাস নিউক্লিয়াস । নিউক্লিয়াসের গঠন ও কাজ এবং নিউক্লিওলাস এর বিষয়ে পর্যালোচনা—— কোষের প্রোটোপ্লাজমের মধ্যে পর্দা দিয়ে ঘেরা কেন্দ্রীয় গঠনটিকে নিউক্লিয়াস বলা হয়। নিউক্লিয়াসকে কোষের প্রাণকেন্দ্র। কোন কোষের নিউক্লিয়াস বাদ দিলে কোষ বিভাজিত হতে পারে না। যেমন মানুষের পরিণত লোহিত কণিকায় নিউক্লিয়াস না…

    1 FacebookTwitterPinterestEmail
  • সেন্ট্রোজোম ঃ গুরুত্ব ভূমিকা কাজ গঠন ও সেন্ট্রিওল অধিকাংশ কোষেই মাইক্রোটিউবিউল গুলি একটি কেন্দ্রীয় অঞ্চল থেকে উৎপন্ন হয়ে বাইরের দিকে বিস্তৃত হয়। এই কেন্দ্রটিকে মাইক্রোটিউবিউল সংগঠন কেন্দ্র বা মাইক্রোটিউবিউল অর্গানাইজিং সেন্টার বলে। প্রাণী কোষে প্রধান মাইক্রোটিউবিউল অর্গানাইজিং সেন্টারের নাম সেন্ট্রোজোম । সেন্ট্রোজোম কাকে বলে সকল প্রাণী কোষ এবং কিছু উদ্ভিদ…

    0 FacebookTwitterPinterestEmail
  • এই আলোচনাতে আমরা ক্রোমোজোম কি, ক্রোমোজোমের গঠন, ক্রোমোজোমের ভৌত গঠন, ক্রোমোজোমের রাসায়নিক গঠন এবং ক্রোমোজোমের রাসায়নিক উপাদান সম্পর্কে জানবো। ক্রোমোজোম কি প্রতিটি কোষে অবস্থিত একপ্রকার তন্তময় বস্তু যা ক্ষারীয় রঞ্জক দ্বারা রঞ্জিত হয় তাকে ক্রোমোজোম বলা হয়। সকল জীবকোষের ক্রোমোজোম তন্তুর মত হলেও এদের আকৃতি কোষ বিভাজনের বিভিন্ন দশায় ও…

    0 FacebookTwitterPinterestEmail
  • এন্ডোপ্লাজমিক রেটিকুলাম এর গঠন কাজ ও পার্থক্য এন্ডোপ্লাজমিক রেটিকুলাম এর গঠন কাজ সংজ্ঞা, আবিষ্কার, নামকরণ, উৎপত্তি,‌ বিস্তৃতি, সংখ্যা, এবং কত প্রকারের হয় তা নিয়ে বর্ণনামূলক ভাবে আলোচিত হলো… এন্ডোপ্লাজমিক রেটিকুলাম কি কোষের সাইটোপ্লাজমের এন্ডোপ্লাজম অংশের মধ্যে জালক আকারে বিস্তৃত একক পর্দা বিশিষ্ট অসম আকৃতির কোষীয় অঙ্গাণুকে এন্ডোপ্লাজমিক রেটিকুলাম (endoplasmic reticulum…

    0 FacebookTwitterPinterestEmail