অ্যাসিটিলিন – ধর্ম, ব্যবহার, উৎস, সংকেত

0
161

অ্যাসিটিলিনের সংকেত C2H2
বিজ্ঞানী এডমন্ড ডেভি অ্যাসিটিলিন গ্যাস আবিষ্কার করেন 1865 খ্রিস্টাব্দে। অ্যাসিটিলিন অসম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন। প্রকৃতিতে মুক্ত অবস্থায় এসেছিলেন পাওয়া যায় না।

অ্যাসিটিলিনের উৎস

১. প্রকৃতিতে মুক্ত অবস্থায় অ্যাসিটিলিন পাওয়া যায় না। তবে কোল গ্যাসের সামান্য পরিমাণ (0.01%) অ্যাসিটিলিন থাকে।
২. পরীক্ষাগারে সাধারণ উষ্ণতায় ক্যালসিয়াম কার্বাইডের সঙ্গে জল মিশিয়ে অ্যাসিটিলিন প্রস্তুত করা হয়।
CaC2+H2O=C2H2+Ca(OH)2
৩. তাপ বিভাজন পদ্ধতিতে মিথেন থেকে অ্যাসিটিলিন গ্যাস তৈরি করা হয়।
2CH4=C2H2+3H2
৪. স্বাভাবিক বায়ুচাপে পেট্রোলিয়াম খনির প্রাকৃতিক গ্যাসকে (পেট্রোলিয়াম খনির প্রাকৃতিক গ্যাসের মধ্যে 85 শতাংশ মিথেন গ্যাস থাকে) প্রায় 1500°C উষ্ণতায় উত্তপ্ত করে ঠান্ডা করলে মিথেন গ্যাস অ্যাসিটিলিনে পরিণত হয়। এইভাবে বর্তমানে অ্যাসিটিলিনের পণ্য উৎপাদন করা হয়।
2CH4=C2H2+3H2
৫. এছাড়াও অন্যান্য জৈব যৌগ যেমন এলকোহল এবং হাইড্রোকার্বনের অসম্পূর্ণ দহনের ফলে এই গ্যাস উৎপন্ন হয়।

অ্যাসিটিলিন এর ধর্ম

অ্যাসিটিলিনের ধর্ম নিম্নে বর্ণনা করা হলো
১. C2H2 একটি অসম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন। এর একটি অণুতে দুইটি কার্বন পরমাণু ও দুটি হাইড্রোজেন ত্রিবন্ধন দ্বারা যুক্ত থাকে।
২. এটি বর্ণহীন ও মিষ্টি গন্ধযুক্ত গ্যাস। কিন্তু পরীক্ষাগারে তৈরীর পর এর মধ্যে কিছু অসুবিধে থাকায় এটি দুর্গন্ধযুক্ত হয়ে থাকে।
৩. C2H2 বাতাসের চেয়ে সামান্য হালকা এবং জলে অল্প দ্রাব্য।
৪. এটি একটি দাহ্য গ্যাস, যা অক্সিজেন বা বায়ুতে উজ্জ্বল শিখায় জ্ব’লে কার্বন ডাই অক্সাইড ও জলীয়বাষ্প উৎপন্ন করে।
2C2H2+5O2=4CO2+2H2O
৫. অ্যাসিটিলিনকে এমোনিয়াযুক্ত কিউপ্রাস ক্লোরাইড দ্রবণের মধ্যে পাঠালে লাল বর্ণের কিউপ্রাস অ্যাসিটিলাইড (Cu2C2) অধঃক্ষিপ্ত হয়।
৬. গ্যাসটি লাল রঙের ব্রোমিন জলকে বর্ণহীন করে তোলে।
৭. উত্তপ্ত লোহার নলের মধ্য দিয়ে C2H2 গ্যাসকে চালনা করলে তিন অনু C2H2 যুক্ত হয়ে কোন বেঞ্জিন গঠন করে।
3C2H2=C6H6

অ্যাসিটিলিনের ব্যবহার

অ্যাসিটিলিনকে বিভিন্ন কাজে ব্যবহার হয়। নিচে অ্যাসিটিলিনের ব্যবহার সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো
১. কৃত্রিম তন্তু, কৃত্রিম রাবার, প্লাস্টিক, বেনজিন প্রভৃতি প্রস্তুতিতে অ্যাসিটিলিন ব্যবহার করা হয়।
২. অনেক রকম জৈব যৌগ যেমন অ্যাসিটালডিহাইড, অ্যাসিটিক অ্যাসিড, ওয়েস্ট্রেন (দ্রাবক), ইথাইল অ্যালকোহল প্রভৃতি প্রস্তুতিতে অ্যাসিটিলিনে ব্যবহার হয়।
৩. ইলেকট্রিক ঝালাই, ওয়েল্ডিং এর কাজে অক্সিঅ্যাসিটিলিন শিখা (উষ্ণতা 3500°C) ব্যবহার করা হয়।
শিল্পক্ষেত্রে ধাতব পদার্থ কাটা ও জোড়া লাগানোর কাজে অক্সিঅ্যাসিটিলিন গ্যাস ব্যাপকভাবে ব্যবহার করা হয়।
৪. গ্রামে-গঞ্জে আলো উৎপাদনের কার্বাইড গ্যাস বাতিতে ব্যাপকভাবে অ্যাসিটিলিন ব্যবহার করা হয়।
৫. চেতনানাশক ওষুধরূপ অ্যাসিটিলিনের ব্যবহার হয়।

অ্যাসিটিলিন সম্পর্কিত প্রশ্নোত্তর

অ্যাসিটিলিন গ্যাস দুর্গন্ধযুক্ত কেন

পরীক্ষাগারে উৎপন্ন অ্যাসিটিলিনে অশুদ্ধি হিসেবে ফসফিন, হাইড্রোজেন সালফাইড এবং অ্যামোনিয়া থাকে যার কারণে গ্যাসটি দুর্গন্ধযুক্ত হয়ে থাকে।

অ্যাসিটিলিনের সংকেত কি

অ্যাসিটিলিনের সংকেত C2H2

আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here